ভিপিএন ও প্রক্সির মধ্যে সিকিউরিটির জন্য কোনটি ভালো? 2018

ভিপিএন ও প্রক্সির মধ্যে সিকিউরিটির জন্য কোনটি ভালো?
ভিপিএন ও প্রক্সির মধ্যে সিকিউরিটির জন্য কোনটি ভালো?

আমরা প্রতিদিনই সবাই কম বেশি হলেও ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকি ।ইন্টারনেটে নিজেকে সিকিউর করার জন্য অনেকেই নিজের তথ্য গোপন রেখে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে ভিপিএন কিংবা প্রক্সি ব্যবহার করে থাকি।অনেক ক্ষেত্রে আমরা বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করার জন্য ভিপিএন কিংবা প্রক্সি ব্যবহার করে থাকি ।ভিপিএন কিংবা প্রক্সি ব্যবহার করার যে কোন একটি ব্যবহার করার মূল উদ্দেশ্য হল আইপি অ্যাড্রেসকে গোপন রাখা এবং নিজেকে ইন্টারনেটের বিভিন্ন ধরনের  স্পাই থেকে নিজেকে রক্ষা করা যায় ।অনেকেই মনে করেন প্রক্সি এবং ভিপিএন দুটি এক জিনিস ।যদিও দুটি জিনিসের কাজ এক যেমন ব্লক ওয়েবসাইট আনব্লক করা নিজের আই পি এড্রেস হাইড করা ইত্যাদি তবুও দুটি  জিনিস কিন্তু এক না ।আসলে বলতে পেলে যেখানেই প্রক্সি এবং ভিপিএন এর মিল সেখানেই তাদের  অমিল ।আজকে আমরা আপনাদের ভিপিএন এবং প্রক্সির মধ্যে যে পার্থক্য গুলো আছে সেগুলো কে ভালো করে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব ।আরো চেষ্টা করব যে এদের মধ্যে কোনটি আপনার জন্য উপযোগী তার ওপর আপনাদেরকে কিছু ধারনা  দেওয়ার । 

ভিপিএন

ভিপিএন কি এবং এটি কি কারনে ব্যবহার করা হয় এর সম্বন্ধে সকলেরই বর্তমানে কিছু ধারনা আছে কারণ বর্তমানে যেকোনো জায়গাতেই আপনার না ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস সহ অন্যান্য সার্ভিসের বিভিন্ন বিজ্ঞাপন থেকে শুরু করে অ্যাপ্লিকেশন এমনকি কাজের সম্বন্ধে বিভিন্ন আর্টিকেল পড়ে থাকতে পারেন ।তবে এখনো যদি আপনি এ সম্বন্ধে, কিছু না জেনে থাকেন  তবে আপনার জন্য বলছি যে ভিপিএন হল আপনার আর ইন্টারনেটের মাধ্যমে একটি ভার্চুয়াল সার্ভার ।ওপেন মূলত ভার্চুয়াল সার্ভার না হয় আপনাকে সার্ভারের সাথে কানেক্ট করার জন্য ডাটা গ্রহণ করে আপনাকে স্মরণ করে ফলে আপনার তথ্য সার্ভার এর কাছে গোপন থাকে ।যেমন ধরুন আপনার দেশে ফেসবুক ব্যবহার করা বন্ধ তখন আপনি অন্য কোন দেশ এর একটি ভার্চুয়াল ডিভাইসের মাধ্যমে আপনি সার্ভার এর সাথে কানেক্ট হলেন তখন আপনাকে দেখাবে যে আপনি ওই ভার্চুয়াল ডিভাইসটির লোকেশনে অবস্থান করছেন এবং সেখান থেকে ভার্চুয়াল সার্ভার টি আপনাকে আপনার ডাটা  প্রেরণ করবে ।ফলে ইন্টারনেট সার্ভার কখনোই বুঝতে পারবে না যে আপনার সঠিক আইপি অ্যাড্রেস এবং লোকেশন কোথায় ।এভাবে ভিপিএন ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার নিজের তথ্যকে গোপন করে ইন্টারনেট ইউজ করার সময় সিকিউর ভাবে ইন্টারনেট ইউজ  করতে পারেন ।আবার ভিপিএন সার্ভার টি আপনাকে যখন ডাটা পাঠাবে তখন সে এটি এনক্রিপ্ট করে আপনার ডিভাইসে পাঠিয়ে দেবে । যা পরবর্তীতে শুধু আপনার ডিভাইসটি ডিক্রিপ্ট করতে পারবে ভিপিএন প্রভাইডারের কোন সফটওয়্যার বা সার্ভিসের মাধ্যমে যার ফলে আপনি এবং আপনার ভিপিএন সার্ভার এর মধ্যে কেউ আপনাকে ট্র্যাক করতে কিংবা আপনার ডাটা গ্রহণ করতে পারবে না।ফলে আপনি ছাড়া আপনার রিয়েল আইপি অ্যাড্রেস আর কেউ জানতে পারবে না ।

প্রক্সি

সাধারণত প্রক্সি সার্ভার ঠিক ভিপিএস সার্ভার এর মতই কাজ করে ।আপনি যে ফাইলটি রিকোয়েস্ট করেন সেটি প্রক্সি সার্ভার গ্রহণ করে সেই রিকোয়েস্টই সে নিজে থেকে ইন্টারনেট সার্ভার এর প্রেরণ করে,আবার ইন্টারনেট সার্ভার থেকে ডাটা গ্রহণ করে সেটি আবার আপনাকে প্রেরণ করে ।ফলে দেখা যায় যে আপনার আইপি এড্রেস টি বা লোকেশন ইন্টারনেট সার্ভার এর কাছে শো না করে প্রক্সি সার্ভারের আইপি এড্রেস এবং লোকেশন শো করছে ।এখানে প্রক্সি সার্ভার ভিপিএন এর মত কাজ করলেও আসলে প্রক্সি সার্ভার ভিপিএন এর মত ডাটা এনক্রিপশন না করে ইউজার কে প্রেরণ করে ।

ভিপিএন ও প্রক্সি মধ্যে পার্থক্য

পরের তথ্য থেকে আপনারা বুঝতে পারবেন যে ভিপিএন এবং প্রক্সি সার্ভার উভয় আপনাদের আইপি অ্যাড্রেস ইন্টারনেট সার্ভার এর কাছ থেকে গোপন রাখে।কিন্তু ভিপিএন আপনাকে তাদের ডাটা প্রেরণের সময় এনক্রিপ্ট করে দেওয়ায় আপনার ডেটা সুরক্ষিত থাকে।সে ক্ষেত্রে আপনার মোবাইল কিংবা পিসির সকল ডাটা প্রেরণ এবং গ্রহণ এনক্রিপ্ট এর মাধ্যমে হয় ।আবার আপনি চাইলে আপনার কিছু অ্যাপ্লিকেশন কে ভিপিএন এর এনক্রিপশন থেকে মুক্তি করার জন্য ওয়াইট লিস্টে রেখে দিতে পারেন।অপরদিকে প্রক্সি শুধু নির্দিষ্ট কিছু ডাটা কে ইন্টারনেট সার্ভার এর হাত থেকে রক্ষা করে ।প্রক্সি কোন সময় আপনার সিস্টেম সিস্টেম লেভেলের ডাটা ট্রানসফার কে এনক্রিপ্ট করে না ।প্রক্সি ব্যবহার করার জন্য নির্দিষ্ট অ্যাপের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে প্রক্সি সার্ভার সেটআপ করতে হয় ।যার ফলে নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশন বা সার্ভিস ই আওতায় থাকে ।আবার প্রক্সি ব্যবহার করা বেশিরভাগই HTTP প্রক্সি।যেগুলো সাধারণত ব্রাউজারের সেটিংস-এ পাওয়া যায় ।এসকল এইচটিটিপি সার্ভার আসলে সিকিউর না ।কারণ যখনই আপনি HTTP  কানেকশন ব্যবহার করেন তখনই বুঝা যায় যে আপনি কোন ধরনের এনক্রিপশন ব্যবহার করছেন না ।সে ক্ষেত্রে প্রক্সি সার্ভার আপনার সকল তথ্য জানার ক্ষমতা রাখে ।ফলে কারোর পক্ষে আপনার ডাটা গুলোকে সংগ্রহ করা সহজ হয়ে পড়ে ।তবে অনেক প্রক্সি রয়েছে যেগুলো HTTPS সাপোর্ট করে তবে এর বেশির ভাগই জন্য আপনার কিছু টাকা খরচ করতে হবে কারণ সেগুলো ফ্রী নয়।তাই যতটুকু সম্ভব ফ্রী প্রক্সি ব্যবহার না করাই ভালো ।হতে পারে প্রক্সি গুলা আপনার ডাটা তারা নিজে থেকেই পাস করে দিচ্ছে অন্য কারো কাছে।সে ক্ষেত্রে আপনারা ফ্রি ভিপিএন ব্যবহার করতে পারেন ।সকল ক্ষেত্রেই ভিপিএন এর ব্যবহার উত্তম হবে আপনার প্রক্সি ব্যবহারের থেকে ।
আশা করি উপরোক্ত সকল তথ্য দেখি আপনারা বুঝতে পেরেছেন যে ভিপিএন ব্যাবহার প্রক্সি এর চেয়ে অনেকাংশে ভালো হবে তাই সব সময় প্রক্সি ব্যবহার থেকে দূরে থেকে ভিপিএন ব্যবহার করুন ।

1 comment: